Cricket NewsWomen Cricket

Harmanpreet Kaur: ‘ও নিজেকে কী মনে করে…?’ হারমানপ্রীতের দুর্ব্যবহারে ক্ষুব্ধ মদন লাল, করলেন এই মন্তব্য!!

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে হরমনপ্রীতের (Harmanpreet Kaur) ব্যবহারকে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার মদন লাল তীব্র নিন্দা করেছেন ও তাকে সংযত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক হরমনপ্রীত কৌর (Harmanpreet Kaur) গত কয়েকদিন ধরে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে যথেষ্ট বিতর্ক তৈরি করেছে হরমনপ্রীতের ব্যবহার। তৃতীয় ম্যাচে আম্পায়ার আউট দেওয়ার পর হরমনপ্রীত ক্ষোভে ফেটে পড়েন। মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময় তিনি ব্যাট দিয়ে উইকেট ভেঙে দিয়েছেন।

হরমনপ্রীত আম্পায়ারিংয়ের সমালোচনা করেন ম্যাচ শেষ হয়ে যাওয়ার পর আম্পায়ারিং নিয়ে তিনি যথেষ্ট সমালোচনা করেন। স্পষ্টভাবে তিনি বললেন যে বাংলাদেশের পরেরবার খেলতে এলে, এমন আম্পায়ারিংয়ের জন্য মানসিকভাবে নিজেকে প্রস্তুত করে আসবেন।

Harmanpreet Kaur
Harmanpreet Kaur

এখানেই থেমে থাকেননি হরমনপ্রীত (Harmanpreet Kaur)। ম্যাচ শেষ হয়ে যাওয়ার পর তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক নিগার সুলতানাকে বললেন ট্রফি শেয়ার করার কোন রকম যোগ্যতাই নেই। কারণ সিরিজের এই অন্তিম ম্যাচে তাদেরকে আম্পায়াররা সাহায্য করেছিল। সুলতানাকে হরমনপ্রীত বললেন, আম্পায়ারদের কেও মঞ্চে ডেকে নেওয়া হোক। কারণ আম্পায়াদের সাহায্য ছাড়া তারা এই ম্যাচ জিততেই পারতো না।।

হরমনপ্রীতের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ মদনলাল

হরমনপ্রীত কৌরের (Harmanpreet Kaur) এমন ব্যবহারকে টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন ক্রিকেটার মদন লাল (Madan Lal) তীব্র নিন্দা করেছেন। স্পষ্টভাবে তিনি জানিয়ে দেন যে সিরিজের শেষ ম্যাচে হরমনপ্রীত কৌর যে ব্যবহারটা করেছেন, সেটা যথেষ্ট খারাপ ছিল। এর পাশাপাশি তিনি বললেন যে হরমনপ্রীত ক্রিকেটের থেকে কখনোই বড় নয়।

১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার মদন লাল টুইট করে লিখেছেন যে, “হরমনপ্রীত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাথে যে ব্যবহারটা করেছে, সেটা অত্যন্ত নিন্দনীয়। ক্রিকেটের থেকে কোন খেলোয়াড় বড় হতে পারে না। ও আসলে ভারতীয় ক্রিকেটের ভাবমূর্তিটাই খারাপ করেছে। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের তরফ থেকে ওর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।”

Madan Lal and Harmanpreet Kaur
Madan Lal and Harmanpreet Kaur

হরমনপ্রীতের করা এই ব্যবহারের যথেষ্ট সমালোচনা করেছেন বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক নিগার সুলতানা। নিগার স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন যে আরো ভালো ব্যবহার করা উচিত ছিল হরমনপ্রীতের।

নিগার বললেন, “একেবারেই এটা হরমনপ্রীতের ব্যক্তিগত সমস্যা। আমার সেটা নিয়ে কোন মাথা ব্যথা নেই। একজন ক্রিকেটার হিসাবে আরো ভালো ব্যবহার করতে পারতো। কী হয়েছিল, সেটা সম্পূর্ণভাবে আপনাদের আমি বলতে পারব না। তবে আমার একেবারেই ওর ব্যবহারটা ভালো লাগেনি। সেই জন্যই আমি নিজের দল নিয়ে চলে আসি। ক্রিকেট হল সবসময় শৃঙ্খলা এবং পারস্পারিক সম্মানের একটি খেলা।”

Read Also:আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে আউট হয়ে মেজাজ হারালেন Harmanpreet Kaur, দিলেন ‘মা-বোনের’ গালি !!

Back to top button