আইপিএল ২০২৪ক্রিকেট নিউজফুটবলক্রিকেট গসিপঅন্যান্য খেলাধুলা

একসময় বিরাট কোহলির জায়গা নেওয়ার দাবি উঠেছিল, আজ অধঃপতনের শেষ সীমায় তিনি !!

Updated on:

WhatsApp Group Join Now

টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিকে ভারতীয় দলের শীর্ষস্থানীয় ব্যাটসম্যান হলেন দীপক হুডা। গত বছর তাকে নিয়ে বিরাট কোহলিকে বদলি করার দাবি উঠেছিল। টপ অর্ডারে এসে তিনি আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করেছিলেন। কিন্তু ২০২৩ সালের আইপিএল এর কোন ইনিংসেই তিনি ২০ রানের স্কোরও অতিক্রম করতে পারেননি। ১৭ রান তার সব থেকে বড় ইনিংস ছিল। ওপেনিং থেকে ৭ নম্বরে উঠে গেলেও তার থেকে ফর্ম অনেক দূরে রয়ে গেছে।

WhatsApp Group Join Now

আইপিএলের গত আসরে দীপক হুডা (Deepak Hooda) ১৫ টি ম্যাচ মিলে ৪৫১ রান করেছিলেন তার গড় সংখ্যা ছিল ৩২.২১ এবং তার স্ট্রাইক রেট ছিল ১৩৬.৬৭। কিন্তু আইপিএল ২০২৩ (IPL 2023)-এ তিনি ১২ টি ম্যাচ মিলে ৮৪ রান করেছেন এবং তার গড় সংখ্যা হল ৭.৬৪। তার স্ট্রাইক রেট হলো ৯৩.৩৩। যার মধ্যে দুটি ছক্কা ও তিনটি চার রয়েছে। খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্স যে আইপিএলের দুই মরশুমে এত বড় পার্থক্য তৈরি করতে পারে সেটা দীপক হুডাকে না দেখলে বোঝা যেত না। আইপিএল ২০২৩ ছিল লখনউ সুপার জায়েন্টসের (LSG) এই ব্যাটসম্যানের জন্য দুঃস্বপ্নের মত।

IPL মরসুমে প্রভাবশালী ব্যাটসম্যানের সর্বনিম্ন ব্যাটিং গড় (কমপক্ষে ১০ ইনিংস)
৭.৬৩- দীপক হুডা (২০২৩)
৭.৭২ – নিকোলাস পুরান (২০২১)
১০.৬২- দীপক হুডা (২০১৬)

ইলিমিনেটর ম্যাচে লখনউ সুপার জায়ান্টস মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি হয়েছিল। এতে রান আউট হয়ে গিয়েছিল লখনউয়ের তিনজন ব্যাটসম্যান। এই তিনজনের মধ্যে দীপক হুডা ছিলেন একজন। ক্রিজে তিনি প্রথম ধাক্কা খেয়েছিলেন মার্কাস স্টইনিসের সাথে। এরপর কৃষ্ণাপ্পা গৌতম রান আউট হয়ে যান। শেষ পর্যন্ত দীপক হুডা নিজেই রান আউট হয়ে ফিরে আসেন।

২১ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের ১৭টি ইনিংসে ভারতের হয়ে দীপক হুডা ৩৬৮ রান করেছিলেন। তার গড় সংখ্যা হল ৩১ এবং তার স্ট্রাইক রেট হলো ১৪৭। বর্তমানে তার ভূমিকা ভারতীয় দলে একজন ফিনিশারের মতো। কিন্তু আইপিএলের এই মরশুমে রিঙ্কু সিং মিডিল অর্ডারে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন। তিলক বর্মা একটি দাবি পেশ করেছেন। এই পরিস্থিতিতে এই রকম বাজে পারফরম্যান্সের জন্য ভারতীয় দল থেকে দীপককে বাদ দেওয়া হলে অবাক হওয়ার মতো কিছু নেই।

About Author
2.