AB De Villiers: “তরুণদের শেখা উচিত…” বিরাট-রোহিতের প্রত্যাবর্তনে খুশি এবি ডি ভিলিয়ার্স, করলেন এই মন্তব্য !!

AB De Villiers: বিশ্বকাপের পরবর্তী সময়ে ভারতীয় ক্রিকেট শিবিরের অন্যতম দুই মহারথী বিরাট (Virat Kohli) ও রোহিতের (Rohit Sharma) দেখা মেলেনি সীমিত ওভারের ক্রিকেটে। এই দুই মহারথী দক্ষিণ আফ্রিকার (South Africa) বিরুদ্ধে দুই ম্য়াচের টেস্ট সিরিজ খেলেছেন। ক্রিকেট মহলের একাংশর তরফ থেকে জানা যাচ্ছে, ভবিষ্যতে ভারতের টি২০ (T20 Series) পরিকল্পনায় নেই রোহিত-বিরাট জুটি। বিস্তারিত জেনে নিন Kheladhular Jogot-এর এই প্রতিবেদনে।

তবে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে চলতি তিন ম্য়াচের টি২০ সিরিজের জন্য় রোহিত- কোহলি জুটিকে নিয়ে দল করে, অজিত আগরকরের জাতীয় নির্বাচক কমিটি বোঝায়। জুনে অনুষ্ঠিত হতে চলা কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপের ভাবনায় রয়েছেন বর্তমান ও প্রাক্তন অধিনায়ক।

Rohit Sharma And Virat Kohli, Ab De Villiers
Rohit Sharma And Virat Kohli

ব্য়ক্তিগত কারণে বিরাট মোহালিতে খেলছেন না। তবে ইন্দোর ও বেঙ্গালুরুতে সিরিজের শেষ দুই ম্য়াচে তাঁর দেখা মিলবে।ম্য়াচের আগের দিন সাংবাদিকদের সাথে বৈঠকে একথা স্পষ্ট করেন রাহুল দ্রাবিড়। বিরাট-রোহিতের কামব্যাক নিয়ে এবার মন্তব্য় করলেন এবি ডি ভিলিয়ার্স (AB de Villiers)।

Ab De Villiers
Ab De Villiers

এই প্রসঙ্গে এবিডির অভিমত, ‘বিরাট-রোহিতের ফেরায় আমি একটুও অবাক হইনি। আমি বিরাট-রোহিতের জন্য় খুবই খুশি হয়েছি। টি ২০ বিশ্বকাপে ভারত চাইবেই তার সেরা দল নিয়ে নামতে। এর পাশাপাশি আমি সমালোচনার দিকটাও বুঝতে পারছি। বিরাট-রোহিতের জন্য় নিয়মিত খেলা তরুণ ক্রিকেটাররা বাদ পড়ছে। আমিও ঠিক একই জায়গায় ছিলাম কেরিয়ারের শেষের দিকে। তবে আমার জন্য় বিষয়টা কাজ করেনি। তবে বিরাট-রোহিতের জন্য় সঠিক পদক্ষেপ। অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের দলে চাই। যারা অতীতেও পারফর্ম করেছে। বিরাট-রোহিত চেষ্টা করবে ভারতকে কাপ জেতানোর।

প্রথমবার ২০০৭ সালে ঘটেছিল  টি-২০ বিশ্বকাপ। এবার নবম সংস্করণ ঘটতে চলেছে কুড়ি ওভারের। টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মত অংশগ্রহণ করছে ২০ টি দল। সেই দলগুলিকে আবার চারটি বিভাগে বিভক্ত করা হবে। এর মধ্যে থেকেই প্রথম ও দুয়ে শেষ করা দল সুপার এইটের জন্য় কোয়ালিফাই করবে।

Rohit Sharma And Virat Kohli
Rohit Sharma And Virat Kohli

এই প্রথম টি-২০ বিশ্বকাপে সামিল হতে চলেছে প্রতিবেশী দেশ নেপাল। প্রাথমিক পর্যায় পেরিয়ে মূল পর্বে পা রাখছে ওমান। এছাড়াও সুযোগ করে নিয়েছে উগাণ্ডা। মার্কিন মুলুকে ফ্লোরিডার লডারহিল, মরিসভিল, ডালাস এবং নিউ ইয়র্ককে টুর্নামেন্টের ম্যাচ ও অনুশীলনের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার আইসিসি বিশ্বযুদ্ধের সূচি ও গ্রুপবিণ্যাস ঘোষণা করে দিল।

১ জুন থেকে ২৯ জুন পর্যন্ত বিশ্বযুদ্ধ চলবে। ৯ ভেন্য়ুতে ৫৫ ম্য়াচ। উদ্বোধনী ম্য়াচেই মাঠে নামছে আয়োজক দেশ আমেরিকা। তাদের প্রতিপক্ষ কানাডা। টুর্নামেন্টের হাই-ভোল্টেজ ভারত-পাকিস্তানম্য়াচ হবে ৯ জুন নিউ ইয়র্কে। ২৯ জুন ফাইনাল হবে বার্বোডোজে।

AB De Villiers: “ধোনি একা জেতায়নি…” ভারতের বিশ্বকাপ ২০১১ নিয়ে বড় বয়ান দিলেন এবি ডি ভিলিয়ার্স !!

Leave a Comment