বীরেন্দ্র শেবাগের ছেলে দিল্লি দলে সুযোগ পেলেন, বাবার মতোই বিস্ফোরক এবং বোলারদের পেটান তিনি !!

ভারতীয় দলকে অনেক ম্যাচ জিতিয়েছেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন ওপেনার বীরেন্দ্র শেবাগ। তার বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের জন্য এখনো শেবাগকে ভক্তরা মনে রাখে। একই সাথে তার প্রিয় পুত্র আর্যবীর তাকে কপি করছেন। শেবাগের পুত্রকেও দেখা যাচ্ছে আক্রমণাত্মক ব্যাট করতে। আপনাকে আমরা বলি, অনূর্ধ্ব-১৬ দলের বীরুর ছেলে জায়গা পেয়েছেন। দুটি ছেলে শেবাগের, যার মধ্যে আর্যবীর হলো বড় ছেলে এবং বেদান্ত ছোট ছেলে।

আর্যবীর অনূর্ধ্ব-16-এ জায়গা পেয়েছেন :-

আর্যবীর বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের জন্য ধীরে ধীরে নাম কামাচ্ছেন তার বাবা বীরেন্দ্র শেবাগের মতোই। অনূর্ধ্ব-১৬ বিজয় মার্চেন্ট ট্রফির জন্য আর্যবীর জায়গা পেয়েছেন দিল্লি দলের হয়ে। তবে দিল্লির একাদশে বিহারের বিরুদ্ধে তাকে দেখা যায়নি। আশা করা হচ্ছে, আর্যবীরকে আগামী ম্যাচগুলিতে খেলানো হলে মাঠে তিনি তার বাবার মতোই চার- ছক্কা মারতে সক্ষম হবে। তার ব্যাটিংয়ের প্রতি অভিভাবকরাও আগ্রহী হবে। আপনাকে আমরা বলি, এখন আর্যবীর তার ক্যারিয়ার শুরু করেছেন। নিজেকে যদি মেলে ধরতে পারেন তাহলে তিনিও বাবার মতোই হয়তো খ্যাতি অর্জন করবেন।

বীরেন্দ্র শেবাগের ক্রিকেট ক্যারিয়ার:-

জানিয়ে রাখি, ১৯৯৯ সালে বীরেন্দ্র শেবাগ ওয়ানডে ক্রিকেটে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতীয় দলে অভিষেক ঘটনা। তার অভিষেক ম্যাচটি জঘন্য ছিল। প্রথম ম্যাচে তিনি নিজের রানের খাতা খুলতে গিয়ে ধরা পড়েন ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারের কাছে।

যদিও আর তাকে তারপর থেকে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। অভিষেকের পর থেকে বীরেন্দ্র শেবাগ দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিলেন ২০১৩ সাল পর্যন্ত। তিনি মোট ১০৪ টি টেস্ট এবং ২৫১ টি ওয়ানডে ও ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ভারতের হয়ে।

শেবাগের ঝুলিতে মোট টেস্টে ৮৫৮৬, ওয়ানডেতে ৮২৭৩ এবং টি-টোয়েন্টিতে ৩৯৪ রান রয়েছে। উজ্জ্বল ছিল তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ২০১৫ সালে ২০ অক্টোবর তিনি অবসরের ঘোষণা করেন। ভারতের একমাত্র ব্যাটসম্যান হলেন বীরেন্দ্র শেবাগ যিনি দুবার ট্রিপল সেঞ্চুরি করেছেন টেস্ট ক্রিকেটে।