ক্রিকেট বিশ্ব কাঁপানো সেই তারকা এখন সংসার চালাতে বাস চালান !!

যখন তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা শুরু করেন তখন তাকে শ্রীলঙ্কার ভবিষ্যৎ বলা হতো। ২০১১ সালের বিশ্বকাপে তিনি খেলেছেন। মহেন্দ্র সিং ধোনির সাথে আইপিএলে খেলেছেন। কিন্তু তার ক্রিকেট জীবন শেষ হয়ে যায় মাত্র সাত বছরে। এখন শ্রীলঙ্কার সেই প্রাক্তন স্পিনার সুরজ রন্দিভ সংসার চালাতে অস্ট্রেলিয়ায় বাস চালান।

২০০৯ সালে আন্তর্জাতিক অভিষেক হয় ডান হাতি অফ স্পিনার রন্দিভের। তখন মুথাইয়া মুরলীধরণের ক্যারিয়ার শেষের দিকে। ফলে অরবিন্দ ডি সিলভা, অর্জুন রণতুঙ্গার মতো প্রাক্তন ক্রিকেটাররা রন্দিভের উপর বাজি ধরেছিলেন। কিন্তু চোট লাগায় বারবার তার ক্যারিয়ার বাধা পেয়েছে। ২০১৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে মাত্র ৩১ বছর বয়সে তিনি অবসর নিতে বাধ্য হন।

খেলা ছেড়ে দেওয়ার পরে রন্দিভ ক্রিকেটের সাথে আর যোগাযোগ রাখেননি। দেশ ছেড়ে পরিবার নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় চলে গিয়েছেন। সেখানে তিনি বাস চালান। যে হাতের ভেল্কি বুঝতে না পেরে একসময় বড় ব্যাটাররা আউট হয়েছেন, এখন সেই হাত স্টিয়ারিং সামলায়।

রন্দিভ আইপিএলেও খেলেছেন। ২০১১ সালে চেন্নাই সুপার কিংস তাকে কিনেছিল। তিনি ৮ টি ম্যাচ খেলেছিলেন ধোনির দলে রয়ে। ছয়টি উইকেট নিয়েছিলেন। পরের বছর চেন্নাই আর তাকে ধরে রাখেনি। তারপর থেকেই আইপিএলেও আর সুযোগ পাননি।

শ্রীলঙ্কার হয়ে সাত বছরে রন্দিভ ১২টি টেস্ট, ৩১টি এক দিনের ম্যাচ ও ১৭টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। ৪৩ টি উইকেট নিয়েছেন টেস্টে, একদিনের ক্রিকেটে নিয়েছেন ৩৬ টি উইকেট এবং টি-টোয়েন্টিতে তিনি সাতটি উইকেট নিয়েছেন। ২০১১ সালের বিশ্বকাপ অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের পরিবর্ত হিসাবে শ্রীলঙ্কা দলে রন্দিভ সুযোগ পেয়েছিলেন। তিনি ফাইনালে ভারতের বিরুদ্ধে খেলেছিলেন। উইকেট পাননি যদিও।