MI vs RCB, IPL 2023: ক্রিজে প্রায় ৩ মিটার এগিয়ে এসেছিলেন রোহিত, তবু LBW দেওয়া হল,ক্ষেপে লাল নেটপাড়া !!

প্রায় ৩ মিটার মতো এগিয়ে এসে রোহিত শর্মা বল মারার চেষ্টা করেছিলেন। বল গিয়ে থাই-প্যাডে লাগে। তার পরেও জোরালো ভাবে আউটের অ্যাপিল করা হয়েছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের তরফ থেকে। কিন্তু আউট দেননি ফিল্ড আম্পায়ার। ডিআরএস নে ফ্যাফ ডু’প্লেসি। রোহিতকে তাতে আউট দেওয়া হয়।

তবে আউট হওয়ার পর রোহিত নিজেই সেটা হজম করতে পারছিলেন না। সিদ্ধান্ত জানার পর তিনি হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন। বিশ্বাস করতে পারছিলেন না তিনি, যে তিনি ক্রিকেটের নিয়ম অনুযায়ী আউট হতে পারেন। রোহিতকে দেখা গিয়েছে ডাগআউটে ফিরে গিয়ে হতাশা এবং বিরক্তি প্রকাশ করতে। রোহিতের আউট হয়ে যাওয়াটা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের কোন সদস্যই মানতে পারছিলেন না।

মুম্বাইয়ের ইনিংসের পঞ্চম বলে এই ঘটনাটি ঘটেছিল। মঙ্গলবার ওয়াংখেড়েতে আরসিবি এবং মুম্বাই মুখোমুখি হয়েছিল। সেই ম্যাচে আরসিবির দেওয়া বড় রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইশান শুরুতেই ঝড় তোলেন। তবে পঞ্চম ওভারের চতুর্থ বলে ইশান ২১ বলে ৪২ রান করে সাজঘরে ফিরে গিয়েছিলেন। আরসিবির উইকেট কিপার অনুজ রাওয়াত ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার বলে ক্যাচ ধরেন।

এরপর সূর্য কুমার যাদব স্ট্রাইকে এসেছিলেন ইশানের পরিবর্তে। তিনি এক রান নেওয়ার পর, ওভারের শেষ বলে রোহিত স্ট্রাইকে আসেন। সেই বলেই ওয়ানিন্দু রোহিতকে এলবিডব্লিউ করেন। তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে সেই আউট নিয়ে। রোহিত কী আদেও আউট ছিলেন। নেটপাড়ায় তীব্র কাটাছেঁড়া চলছে। তবে বেশিরভাগ দাবি করেছে, যে রোহিতকে অন্যায্য ভাবে আউট দেওয়া হয়েছে।

আইপিএলে রোহিত এবার খুব খারাপ ফর্মে আছে। আশা করা হয়েছিল, মঙ্গলবার ওয়াংখেড়েতে তাকে হয়তো আরসিবির বিরুদ্ধে পুরনো ছন্দে পাওয়া যাবে। কিন্তু ভাগ্য খারাপ ছিল রোহিতের। আগের দুটি ম্যাচে তিন বল খেলে সাজঘরে ফিরে গিয়েছিলেন খালি হাতে। শেষ পাঁচটি ইনিংস মিলে তিনি মাত্র ১২ রান সংগ্রহ করেছেন। ইশান এই দিন আক্রমণাত্মক মেজাজে থাকায়, রোহিত তাকেই বেশি স্ট্রাইক দিচ্ছিলেন। নিজে মাত্র আটটি বল খেলেছিলেন। তার মধ্যে সাত রান করে তিনি প্যাভিলিয়নে ফিরে গিয়েছিলেন। হাত খোলার আগেই হিটম্যানের উপর খাঁড়া নেমে আসে।

২০২৩ আইপিএলে রোহিত ১১ টি ম্যাচ খেলে ১৯১ রান করেছে। তার গড় সংখ্যা হল ১৭.৭৬। তার স্ট্রাইক রেট হলো ১২৯.৭৩। তিনি সর্বোচ্চ ৬৫ রান করেছেন। এই মরশুমে রোহিত মাত্র একটি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন।