মেরি কমের রেকর্ড ভেঙে ইতিহাস গড়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হলেন ভারতের বক্সার নিখাত!

আরো একবার নিখাত জারিনের নিখুঁত পাঞ্চে দেশের নাম উজ্জ্বল হল। আমারও ভারতীয় বক্সার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জিতলেন। ভিয়েতনামের এন থি টামকে হারিয়ে তিনি দ্বিতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হলেন। রবিবার ৪৮-৫০ কেজি বিভাগে ফাইনালের মঞ্চে নিখাত (Nikhat Zareen) রীতিমতো ভিয়েতনামের প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে দাপট দেখিয়েছেন। প্রথম বাউটেই তিনি থি টামকে জোরে বেগ দেন। এরপর লাগাতার পাঞ্চ মেরে প্রতিপক্ষকে রীতিমতো চাপে ফেলে দেন। বারবার নিখাতের কোচকে বলতে শোনা গিয়েছে, “দূর থেকে, সামনে যেওনা।” কোচের নির্দেশ মতোই ভারতীয় তারকা নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে লড়াই চালিয়ে যান। প্রথম বাউটে পাঁচ বিচারক নিখাতকে জয়ী ঘোষণা করেন। দ্বিতীয় রাউন্ডে….

যদিও ভিয়েতনামের তারকা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেন। ৩-২ ব্যবধানের সেই রাউন্ডটি শেষ হয়। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছিল ফাইনাল রাউন্ডে। যাতে নিখাত শেষ হাসিটি হাসেন। গোটা টুর্নামেন্টে নিখাত নিজের জাত চেনাতে সফল হয়েছেন। সেমিফাইনালে তিনি ৫-০ ব্যবধানে কলম্বিয়ার তারকা ভ্যালেন্সিয়াকে হারান। টোকিও অলিম্পিকে এই ভ্যালেন্সিয়ার কাছে ভারতীয় বক্সার মেরি কম পরাস্ত হয়েছিলেন। তবে এই দিন নিখাত ফাইনাল জিতে মেরি কমকে স্পর্শ করে ফেলেন। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে দ্বিতীয় ভারতীয় মহিলা বক্সার হিসেবে একাধিক পদক জিতেছেন তিনি। গত বছরও দেশকে বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে নিখাত সোনা এনে দিয়েছিলেন।

কমনওয়েলথ গেমসেও তিনি সোনা ঘরে তুলেছেন। বিশ্ব জয় করে এবারও বুঝিয়ে দিলেন, তিনি দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। আপাতত আগামী বছরের অলিম্পিককেই তারকা বক্সার পাখির চোখ করেছেন। নীতু ঘাঙ্ঘাস সোনার খাতা খুলেছিলেন মহিলাদের বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে। তিনি গতকাল ৪৮ কেজি (মিনিমাম ওয়েট) বিভাগে হারিয়ে ছিলেন মঙ্গোলিয়ার লুতসাইখান আলতানসেতসেফকে। নীতুর সোনা পাওয়ার কিছু ঘন্টার মধ্যেই সুইটি বুরা ৮১ কেজি বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। ফাইনালে চিনের ওয়াঙ লিনাকে তিনি হারিয়ে দেন।

নীতু-সুইটি ছাড়াও বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে মেরি কম, সরিতা দেবী,জেনি আরএল,লেখা কেসি ও নিখাত জারিন দেশের হয়ে সোনা জিতেছেন। নিখাতের সাথে মেরি কমের সম্পর্ক কিন্তু অম্ল-মধুর। নিখাত বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর মেরি এক ইভেন্টে তার সাথে হ্যান্ডশেক করতে অস্বীকার করেন। গত বছর নিখাত ৫২ কেজি বিভাগে থাইল্যান্ডের জুতামাসকে হারিয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। আর চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর নিখাত এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন যে, সলমান খানের বিরাট বড় ফ্যান তিনি।

নিখাত বলেছেন, ‘আমি কখনো সলমান খানকে ভাই বলিনি। বাকিদের জন্য উনি ভাই। আমার কাছে হল জান। আমি বিরাট বড় ফ্যান সলমান খানের। অলিম্পিক্সে আমি পদক জিততে চাই। তারপর আমার স্বপ্ন হলো মুম্বাইতে গিয়ে সলমানের সাথে দেখা করা।’ নিখাতের স্বপ্ন পূরণ হয় কিনা দেখা যাক!