ভারতের অবহেলা ঠেকাতে আয়ারল্যান্ড! সঞ্জু স্যামসনকে তাঁদের দেশের হয়ে খেলার লোভনীয় প্রস্তাবে দিলেন যোগ্য জবাব !!

সঞ্জু স্যামসন হলেন ভারতীয় দলের তরুণ উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান। ভারতীয় দলে তিনি বারবার উপেক্ষিত হয়েছেন। রান করলেও মাঝেমধ্যে এক-আধটা সিরিজ ছাড়া তিনি দলে সুযোগ পায় না বললেই চলে। সম্প্রতি,আয়ারল্যান্ড ভারতীয় দলে বারবার অবহেলিত উইকেট রক্ষক কে বড় প্রস্তাব দিয়ে বসলো। তাদের দেশের হয়ে খেলার জন্য সঞ্জুকে ছাড়পত্র পাঠাল। সব ম্যাচে খেলানোরও প্রস্তাব দিয়েছে তারা সঞ্জুকে এখন পেতে চাইছে।

আপনাকে আমরা বলি, রঞ্জি ট্রফিতে খেলার জন্য তিন বছর পর সঞ্জু স্যামসন আবার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। লম্বা রেস্ট নিয়ে তিনি প্রত্যাবর্তন করতে চলেছেন লাল বলের ক্রিকেটে। বর্তমানে ভারতীয় দল বাংলাদেশে সিরিজ খেলতে ব্যস্ত, একই সাথে কোচিতে সঞ্জু। রঞ্জি ট্রফি খেলার জন্য তার দল প্রস্তুতি নিচ্ছে। সঞ্জু স্যামসন দলের অধিনায়ক।

বাংলাদেশ সফরের জন্য সঞ্জুকে দলে রাখা হয়নি। প্রথম ঐকের রক্ষকের বিকল্প হিসাবেও তাকে সুযোগ দেওয়া হয়নি। দলে ঋষভ পন্থের বদলি হিসাবে ঈশান কিষাণ বা কে এল রাহুল উইকেট রক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন। টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এস ভরত দ্বিতীয় উইকেট রক্ষক হিসাবে এসেছেন। এক কথায় উপেক্ষার পর উপেক্ষা করছে সঞ্জু স্যামসনকে। আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড(Ireland Cricket Board) এমন পরিস্থিতিতে বড় বয়ান দিলেন সঞ্জুকে নিয়ে।

আয়ারল্যান্ড সঞ্জুর মত ক্রিকেটারকে পেলে সেই দেশের ক্রিকেট বোর্ড মনে করছেন তাদের লাভ হবে বলে। তাদের দেশের হয়ে খেললে সঞ্জুকে সব ম্যাচে খেলানোর সুযোগ দেওয়া হবে এই প্রতিশ্রুতিও দেয়। যদিও সঞ্জু এর জবাবে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি অন্য দেশের হয়ে খেলবেন না। প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না অন্য কোন দেশের হয়ে। সুযোগ না পেলেও তিনি যে ভারতেই থাকতে চান তা পরিষ্কার।

আপনাকে আমরা বলি, ২০১৫ সালে ভারতীয় দলের হয়ে ২৮ বছর বয়সে সঞ্জুর অভিষেক হয়। এই সাত বছরে তিনি মাত্র ১৬ টি টি-টোয়েন্টি এবং ১১ টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলার সুযোগ পান। সঞ্জুর গড় একদিনের ক্রিকেটে ৬৬ এবং ২১.১৪ গড় টি-টোয়েন্টিতে। ভারতীয় দলের যে কোন পরিস্থিতিতে এবং যে কোন পজিশনে খেলতে প্রস্তুত তিনি। যদিও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড(BCCI) এই প্রসঙ্গে এখনো মুখ খোলেনি।