IPL 2023: রিঙ্কুতে আপ্লুত KKR-কে দু’বার IPL জেতানো গৌতম, ম্যাচ শেষে দিলেন ‘গম্ভীর’ সার্টিফিকেট !!

তিন বলে চাই ১৯ রান। ম্যাচ জেতার আশা শেষ হয়ে গেছে। তবে একটি ওয়াইড এল। আবারো আশা জাগলো। শেষ তিন বলে ১৮ রান প্রয়োজন ছিল। তখন ক্রিজে ছিলেন রিঙ্কু সিং। তখন গুজরাট টাইটান্সের বিরুদ্ধে রিঙ্কুর সেই অসাধ্য সাধনের স্মৃতি ভাসছে কেকেআর সমর্থকদের মনে। শেষ ওভারের চতুর্থ বলটি বাউন্ডারির বাইরে উড়ে গেল। কেকেআর সমর্থকদের আশা আরো বেড়ে গেল। ওভারের পঞ্চম বলটিও বাউন্ডারি পার করে দিল। তবে ছক্কা হয়নি সেটা। দুর্দান্ত শট মারলেন কভার অঞ্চল দিয়ে। ওটা চার রান হয়েছে। আর কোনভাবেই ম্যাচ জেতা যাবে না। তাও এই বছরের আইপিএলে রিঙ্কু কেকেআরের শেষ বলে ছক্কা হাঁকালেন। দল এক রানে ম্যাচ হেরে গেল। ম্যাচ জিতে লখনউ প্লে-অফে জায়গা পাকা করে নিল। আর ম্যাচ শেষ হওয়ার পর লখনউয়ের মেন্টর গৌতম গম্ভীরকে কথা বলতে দেখা গেল সবার মন জয় করা রিঙ্কুর সাথে।

গতকাল প্লে অফে যাওয়ার ক্ষীণ আশাটাও ম্যাচের মাঝ পথেই শেষ হয়ে গিয়েছিল। তবুও কেকেআর সম্মানের জন্য খেললো। নিজের ঘরের মাঠে শেষ ম্যাচ জিততে নাইটরা মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। তবে কলকাতা ১ রানে হেরে গিয়েছিল গৌতম গম্ভীরের লখনউ সুপার জায়ন্টসের কাছে। তবে রিঙ্কু সিং শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে গিয়েছিলেন। নিজের কাজ করে যাচ্ছিলেন ঠান্ডা মাথায়। অর্ধশতরান পূরণ করার পরেও তাকে সেভাবে উৎসব করতে দেখা যায়নি। কারণ তার আসল লক্ষ্য তখনও দূর ছিল। আপামর ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ ও বিশ্লেষকরা রিঙ্কুর এই কখনো হার না মানা মনোভাবে মুগ্ধ হয়েছেন।আইপিএল জয়ী কেকেআর-এর প্রাক্তন অধিনায়ক গৌতম গম্ভীরও সেই দলে নাম লেখালেন। ম্যাচ শেষে তাকে রিঙ্কু, নীতীশ আর সূয়শ শর্মার সাথে কথা বলতে দেখা গেল। পরে গৌতম সেই কথোপকথনের ছবি টুইট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘রিঙ্কু আজ কি অসাধারণ খেললো। অসাধারণ প্রতিভা’।

বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে এই রিঙ্কু সিং কেকেআরের সাথে রয়েছেন। গত বছর নিজের প্রতিভার কিছু ছাপ রেখেছিলেন কয়েকটি ম্যাচে। তবে তবে যেন এ বছরের রিঙ্কু ‘মিনি ধোনি’। ম্যাচের শেষ পাঁচটি বলে পাঁচটি ছক্কা মেরে গুজরাটের বিরুদ্ধে দলকে জেতানো, পরপর রান তাড়া করতে গিয়ে দুর্দান্ত সব ইনিংস খেলা। নিচে নেমেও তিনি চারটি অর্ধশতরান করেছেন এই আইপিএলে। এর সাথে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ৪০ রানের ইনিংস রয়েছে। আন্দ্রে রাসেল নয়, এ বছর কেকেআরের ফিনিশার হয়ে উঠেছিলেন রিঙ্কু। দলের কেউ যখন সেই ভাবে ম্যাচ জেতাতে পারছিল না। রিঙ্কু একাই চেষ্টা করে গিয়েছিলেন। নিজের পুরনো দলের এই তরুণ খেলোয়াড়ের খেলা তাই গৌতমের হয়তো মনে ধরেছে। তাই তিনি প্রতিদ্বন্দ্বীর প্রশংসা না করে পারলেন না। এই বছর ২৫ বছর বয়সী রিঙ্কু ১৪ টি ম্যাচ মিলে ৪৭৪ রান করেছেন, তার গড় সংখ্যা হল ৫৯.২৫ এবং তার স্ট্রাইক রেট হল ১৫০। ছোট্ট রিঙ্কু ২৯টি ছক্কা মেরেছেন। অপরাজিত থেকেছেন ৬ বার। এই বছর তার সাহসী ক্রিকেট সকলের মন জয় করেছে। তাই কেকেআর হেরে গেলেও এই বছর সকল ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে রিঙ্কু অপরাজিত থেকে যাচ্ছেন। ম্যাচ শেষে গৌতমও টুইট করে সেই কথাটাই বোঝালেন।