প্রাক্তন অফ স্পিনার হরভজন সিং ভারতীয় দলের নতুন কোচ হিসেবে বেছে নিলেন এই তারকাকে !!

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতীয় দল জয় দিয়ে শুরু করলেও ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে ১০ উইকেটে পরাজয়ের পর নানান প্রশ্ন উঠেছে ভারতীয় দলের অধিনায়ক, কোচ, সিলেকশন কমিটি নিয়ে, দলের অধিনায়ক ও কোচের পরিবর্তন চাইছেন প্রাক্তন ক্রিকেটাররাও, গত সপ্তাহে বহিষ্কার করা হয়েছে ভারতের সিলেকশন কমিটিকে, ভারতীয় দলের কোচের পরিবর্তন চান প্রাক্তন ভারতীয় অফ স্পিনার হরভজন সিং, তিনি ভারতীয় দলের কোচ হিসেবে চান তার সতীর্থ আসিস নেহরাকে। তিনি মনে করেন ভারতীয় দলে নেহরা এবং হার্দিক পান্ডিয়ার দুটি প্রয়োজন।

হরভজন সিং এই বিষয়ে মন্তব্য করে বলেছেন, “টি-টোয়েন্টিতে এমন একজন কোচ খুঁজতে হবে যিনি সম্প্রতি ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন, আমার মতে তিনি হলেন আশিস নেহরা, তার সাথে অধিনায়ক যদি বদলাতে হয় তাহলে আমার পছন্দের অধিনায়ক হলো  হার্দিক পান্ডিয়া।”
ভাজ্জি শুধু নয়, সুনীল গাভাস্কার ও রবি শাস্ত্রী দুজনেই হার্দিক পান্ডিয়াকে দলের অধিনায়কের পরিবর্তন হিসাবে চান।

টারবোনেটরে রাহুল দ্রাবিড়ের কোচিং মন করেনি। এবিষয়ে হরভজন সিং মন্তব্য করে বলেছেন, “দলে অধিনায়ক পরিবর্তন করলে সমস্যা মিটবে না, এমন কাউকে আনতে হবে যিনি সবে মাত্র ক্রিকেট ছেড়েছেন, এবং যিনি এই ফরম্যাটে (টি টোয়েন্টি) পটু, ভারতীয় দলের বর্তমান কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের সাথে আমি খেলেছি, তার ক্রিকেটে দুরন্ত মস্তিস্ক রয়েছে, আমি তাকে সম্মান করি, কিন্তু আমি মনে করি যদি কোচ হিসেবে টি-টোয়েন্টি থেকে দ্রাবিড়কে সরিয়ে দেওয়া হয় তাহলে সেই জায়গায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা বা শ্রেষ্ট পরিবর্তন হবে আসিস নেহরাকে ভারতীয় দলের কোচ হিসেবে আনতে হবে। আইপিএলে প্রথম বারের জন্য কোচ হয়ে ট্রফি জিতলেন নেহরা, আমার মতে তিনি এই ফরম্যাটে বেশি উপকারী হবেন।”

তার অধিনায়কত্ব পছন্দও প্রকাশ করেছেন হরভজন সিং। তিনি বললেন, “নেতৃত্বের জন্য হার্দিক পান্ডিয়া আমার পছন্দ। এর চেয়ে ভালো বিকল্প নেই। তিনি দলের সেরা খেলোয়াড় এবং আপনার দলে তার মতো আরও লোক দরকার।’ ভারতের ব্যাটিং লাইন আপ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন এবং বলেছেন, “এটা ভারতীয় দলের সমস্যা, প্রথম ১০-১২ ওভার স্থির থেকে শেষ ৮ ওভারে রান সবসময় তোলা সম্ভব হয়না, প্রথম থেকে আক্রমন করলে শেষের দিকে চাপটা অনেকটাই কমে থাকে, এই সমস্যা যাতে দীর্ঘমেয়াদি না হয় তারজন্য ম্যানেজমেন্টকে ভাবতে হবে।”