জিতেও লাভ হল না জার্মানির! বিশ্বকাপ থেকে বিদায় চারবারের বিশ্বকাপ জয়ী জার্মানির

জাপানের কাছে স্পেন হারায় ছিটকে গিয়েছে চারবারের চ্যাম্পিয়নরা। গ্রুপ পর্বে জাপানের কাছে হার এবং স্পেনের সঙ্গে ড্র করায় নক আউট পর্বে যাওয়া তাঁদের হাতে ছিল না, অন্য ম্যাচের ফলাফলের দিকেও তাকিয়ে থাকতে হয়েছে। কোস্টারিকার বিরুদ্ধে ৪-২ গোলে জিতলেও গোল পার্থক্যে স্পেন এগিয়ে থাকায় বিদায় নিতে হয়েছে।

এবারও বিশ্বকাপের নকআউটে যেতে না পারার ব্যর্থতাকে ‘চরম বিপর্যয়’ বললেন ২০১৪ বিশ্বকাপ জয়ী দলের ফরোয়ার্ড টমাস মুলার। টানা দু’বার গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে যাওয়ার তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে তিনি বলেন, ‘এটা চরম বিপর্যয়। আমাদের জন্য এটা অবিশ্বাস্যরকমের তিক্ত অভিজ্ঞতা। কারণ আমাদের ফলাফল যথেষ্ট ছিল, যদি স্পেন জাপানের কাছে না হারত। শক্তিহীনতার অনুভূতি হচ্ছে।’

বিশ্বকাপের লড়াই টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচ জিততেই হত জার্মানিকে (Germany)। খেলার শুরুটাও সেভাবেই করেছিল টমাস মুলাররা। শুরু থেকেই তীব্র আক্রমণ শুরু করে জার্মান বাহিনী। ১০ মিনিটের মাথায় হেডে গোল করে জার্মানিকে (Germany) এগিয়ে দেন সার্জ ন্যাব্রি। প্রথম গোল করার পর ব্যবধান বাড়াতে মরিয়া হয়ে উঠেছিল জার্মানি। তাদের দরকার ছিল আরও গোলের কিন্তু প্রথমার্ধে আর কোন গোল করতে পারেনি জার্মানি (Germany)।

দ্বিতীয়ার্থের শুরু থেকে এক অন্য কোস্টারিকা কে দেখা যায়, প্রথমার্ধে ডিফেন্সিভ ফুটবল খেলা কোস্টারিকা হঠাৎই আক্রমণ শুরু করে জার্মানির গোলে। তার ফলও পেয়ে যায় তারা। ৫৮ মিনিটের মাথায় গোল করে সমতা ফেরায় কোস্টারিকা। ম্যাচের ৭০ মিনিটের মাথায় ন্যুয়েরের আত্মঘাতিক হলে এগিয়ে যায় কোস্টারিকা।

পরপর দু গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়ে আক্রমণের ঝাঁঝ দ্বিগুণ করে দেয় জার্মানি। জার্মানির পুরো দলই কার্যত কোস্টারিকার বক্সে ঢুকে পড়েছিল। ৭৩ মিনিটে সমতা ফেরালেন কাই হাভের্ৎজ। ৮৫ মিনিটের মাথায় আবার গোল করলেন তিনি। ৮৯ মিনিটে দলের চতুর্থ গোল করলেন নিকলাস ফুলকুর্গ। শেষ পর্যন্ত ৪-২ ব্যবধানে ম্যাচ জিতল জার্মানি।

কিন্তু জিতেও শেষরক্ষা হল না জার্মানির। স্পেন ও জার্মানি দু’দলেরই পয়েন্ট সমান থাকায় গোল পার্থক্যে এগিয়ে বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে চলে গেল স্পেন। অপরদিকে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেল জার্মানি। ২০১৮ এর পর ২০২২ বিশ্বকাপেও একই পরিণত হল জার্মানির। নক আউট পর্বে ওঠার আগেই বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেল চারবারের বিশ্বকাপ জয়ী জার্মানি।