Rahul Dravid : কোচ হিসেবে ডাঁহা ফেল! রাহুল দ্রাবিড়কে সরাতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড?

২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরে, টিম ইন্ডিয়ার সিনিয়র দলের সব সদস্য বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওডিআই সিরিজে প্রথম বারের মতো ২২ গজে ফিরেছে। দলের সিনিয়র খেলোয়াড়দের বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডে-তে খেলতেও দেখা গিয়েছে। এমন কী কোচ রাহুল দ্রাবিড়ও একই সিরিজে ফের কোচ হিসেবে দলের সঙ্গে য়োগ দিয়েছেন। তবে প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের কাছে এক উইকেটে হারতে হয়েছে ভারতকে। তাও জঘন্য ব্যাটিং পারফরম্যান্সের খেসারত দিতে হয়েছে টিম ইন্ডিয়াকে। এই হারের ধাক্কার মাঝেই টিম ইন্ডিয়ার শিবিরে পরিবর্তনের গন্ধ। সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, শীঘ্রই দলে বড় ধরনের পরিবর্তন আনতে চলেছে বিসিসিআই।

বোর্ডের একটি সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, টি-২০ ক্রিকেটের জন্য ভারতের নয়া কোচিং সেট আপ তৈরি করা হবে। এই ঘোষণাটি আগামী জানুয়ারি মাসে করা হতে পারে। যদি এমন ঘটনা বাস্তবে প্রতিফলিত হয়, সেক্ষেত্রে আগামী জানুয়ারি মাসে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে ভারতীয় ক্রিকেট দল নতুন অধিনায়ক এবং নতুন কোচ নিয়ে খেলতে পারে।

বিসিসিআইয়ের এক আধিকারিক ইনসাইডস্পোর্টকে পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, ‘আমরা বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছি। রাহুল দ্রাবিড় বা কারও ক্ষমতার উপর সন্দিহান নয়। তবে ঠাঁসা- সূচির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য এবং টি-টোয়েন্টিতে বিশেষজ্ঞ কাউকে বোর্ড আনতে চাইছে। টি-টোয়েন্টি এখন ভিন্ন ধরনের খেলা। ছাঁসা সূচি এূং নিয়মিত ইভেন্ট খেলার জন্য আমাদেরও পরিবর্তন করতে হবে। আমি নিশ্চিত করতে পারি যে, ভারত শীঘ্রই একটি নতুন টি-টোয়েন্টি কোচিং সেট আপ করবে।’

টিম ইন্ডিয়ার নতুন টি-টোয়েন্টি কোচ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বিসিসিআই আধিকারিক বলেছেন, ‘এখনও পর্যন্ত কাউকে বাছাই করা হয়নি। কবে নাগাদ করা হবে, আমরা নিশ্চিত নই। তবে আমরা নিশ্চিত যে, টি-টোয়েন্টি সেট-আপে ভারতের নতুন পদ্ধতির প্রয়োজন। জানুয়ারির আগে আমরা নতুন অধিনায়ক ঘোষণা করব। আরও নতুন কোচ আসতে পারে, কিন্তু আমি বলেছি কিছুই চূড়ান্ত নয়।’