Sourav Ganguly In Trouble: যুব সমাজকে ‘জুয়া খেলা’-য় উৎসাহিত করার অভিযোগে মামলা সৌরভ-রোহিত-হার্দিকদের বিরুদ্ধে

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের মরসুম শুরু হলেই বিভিন্ন বেটিং (Betting) সংস্থাগুলির রমরমা দেখা যায়। একাধিক প্রাক্তন ও বর্তমান তারকা ক্রিকেটার থেকে শুরু করে তাবড় তাবড় অভিনেতারাও বিভিন্ন ফ্যান্টাসি গেমিং অ্যাপগুলির প্রমোশন করে থাকেন। ড্রিম ইলেভেন, মাই ১১ সার্কলের মতো বিভিন্ন গেমিং অ্যাপের প্রচারের মুখ রোহিত-আমিররা। বছরভর বেটিং সংস্থাগুলির প্রমোশন তো চলেই। আইপিএলের মরসুম এলেই পরিমাণটা আরও বেড়ে যায়। ১৬তম আইপিএল (IPL 2023) চলাকালীন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, রোহিত শর্মা, হার্দিক পান্ডিয়ার মতো ক্রিকেটারদের দেখা যাচ্ছে বেটিং সাইটগুলির প্রমোশন করতে। এই তালিকায় রয়েছেন বলিউড সুপারস্টার আমির খানও। এই চারজনের বিরুদ্ধে এ বার বিহারের মজুফফরপুরে এক জনস্বার্থ মামলা (PIL) দায়ের হয়েছে।

এই জুয়া খেলার প্রতিবাদ জানাতে এবার আদালতে চলে গেলেন বিহারের সমাজসেবী তামান্না হাসমি (Tamannah Hasmi)। তিনি বলেন, “এই তারকাদের দেখে অনেকেই উদ্বুদ্ধ হন। অথচ এই আইকনরাই সজ্ঞানে কিংবা অর্থের দিকে ঝুঁকে আমাদের দেশের যুবসমাজকে ধ্বংস করছেন। এই সব তারকারা আগামী প্রজন্মকে একেবারে নষ্ট করছেন। জুয়া খেলায় উৎসাহ করে তাদের বিপথে চালিত করা হচ্ছে।”

টিম ইন্ডিয়া মাঠে নামলে এমনকি আইপিএল শুরু হলেই, গত কয়েক বছর ধরে দেশজুড়ে এই অনলাইন গেমিং অ্যাপগুলোর দাপট বেড়েছে। প্রতিটি গেমিং অ্যাপ যুব সমাজকে কয়েক কোটি টাকার পুরস্কার জেতার লোভ দেখাচ্ছে। সমাজকে গোল্লায় পাঠিয়ে দেওয়া এমন বিজ্ঞাপনে সৌরভ, রোহিত, হার্দিক, আমির, আর মাধবনদের দেখে দেশের এক শ্রেণীর মানুষ অবাক। কোনও আইনি বাধাবিপত্তি না থাকায় মোবাইল কিংবা ল্যাপটপের সাহায্যে এই জুয়া খেলায় মজেছে যুবসমাজ। ধূমপান কিংবা মদ্যপানের মতোই এই জুয়া খেলার প্রতি অগণিত তরুণ-তরুণীর আসক্তি বেড়েছে।

১৬তম আইপিএলে গুজরাট টাইটান্স দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন হার্দিক পান্ডিয়া। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ক্যাপ্টেন্সি সামলাচ্ছেন রোহিত শর্মা। বর্তমানে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় দিল্লি ক্যাপিটালসের বোর্ড অফ ক্রিকেট। দিল্লিই একমাত্র দল যারা চলতি আইপিএলে এখনও একটা ম্যাচেও জিততে পারেনি। অন্যদিকে গুজরাট ও মুম্বই যথাক্রমে ৩টি ও ১টি ম্যাচে জিতেছে। পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে আজ মোহালিতে গুজরাটের ম্যাচ রয়েছে।