আইপিএল ২০২৪ক্রিকেট নিউজফুটবলক্রিকেট গসিপঅন্যান্য খেলাধুলা

তোলপাড় ক্রিকেট বিশ্ব সৌরভকে নিয়ে ১৮ বছর পর রহস্য উন্মোচন করলেন নাগমা !!

WhatsApp Group Join Now ভারতীয় সিনেমা জগত অর্থাৎ বলিউডের সাথে ভারতীয় ক্রিকেটারদের গভীর সম্পর্ক আছে। সব সময় খবরের শিরোনাম ভারতীয় ক্রিকেটারদের সাথে বলিউড সুন্দরীদের মধ্যে ...

Updated on:

WhatsApp Group Join Now

ভারতীয় সিনেমা জগত অর্থাৎ বলিউডের সাথে ভারতীয় ক্রিকেটারদের গভীর সম্পর্ক আছে। সব সময় খবরের শিরোনাম ভারতীয় ক্রিকেটারদের সাথে বলিউড সুন্দরীদের মধ্যে অ্যাফেয়ারের খবর থাকে। এই সম্পর্ককে ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে কয়েকজন এগিয়ে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করে ফেলেছেন। কিন্তু অ্যাফেয়ারের পর বেশ কিছু খেলোয়াড়ের সম্পর্ক শেষ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কখনই খবরের শেষ হয় না।

WhatsApp Group Join Now

এভাবেই ভারতীয় ক্রিকেট দলের মতো সেরা অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীর সাথে একজন বলিউড অভিনেত্রীর অ্যাফেয়ার ছিল। যদিও ভারতীয় ক্রিকেটে সৌরভ অন্যতম সম্মানীয় ব্যক্তি, এই ধরনের ব্যাপারে যার কখনোই নাম জড়ায় নি, কিন্তু সৌরভের ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে একজন বলিউড সুন্দরীর সাথে অ্যাফেয়ার হয়ে গিয়েছিল।

২০০০ সালে সৌরভ গাঙ্গুলী এবং বলিউড সুন্দরী নাগমার মধ্যে সম্পর্ক নিয়ে বড় চর্চা হতো। ওই সময়ের সুন্দরী অভিনেত্রী নাগমার নাম জুড়ে ছিল সৌরভ গাঙ্গুলীর সাথে। এবং নানা ধরনের কথা শোনা যে তাদের সম্পর্কের ব্যাপারে। সেই সময় মনে করা হতো দীর্ঘ দিন ধরে সৌরভ এবং নাগমার মধ্যে অ্যাফেয়ার চলছে।

কখনো দুজনের কেউ তা স্বীকার করেনি নাগমা রহস্যের উন্মোচন করলেন আঠারো বছর পর, সৌরভ গাঙ্গুলীর সাথে ব্রেকাপের কারণ জানালেন। ২০০০ সালে নিজের ক্যারিয়ারের সবথেকে দারুণ সময়ের মধ্যে দিয়ে চলছিলেন সৌরভ। বলিউডে সেই সময় নাগমার জাদু চরমে ছিল। সৌরভ এবং নাগমার মধ্যে কোনভাবে রিলেশন শুরু হয় এবং তা দীর্ঘ সময় ধরে চলেছিল, কিন্তু কখনোই দুজনের মধ্যে কেউই মিডিয়ার সামনে এই কথা স্বীকার করেনি।

শেষ পর্যন্ত সৌরভের সাথে সম্পর্ক নিয়ে নাগমা প্রায় ১৮ বছর পর মুখ খুললেন। তিনি বললেন, “যা কিছুই হয়ে যাক না কেন এই কথা কেউই স্বীকার করেনি। যতক্ষণ পর্যন্ত একে অপরের জীবনে একে অপরের অস্তিত্বকে অস্বীকার করা না হয়, ততক্ষণ যা খুশি বলতে পারে যে কোন ব্যক্তি। হয়তো আমরা দুজনে মিডিয়ার সামনে একে অপরের প্রেমের কথা স্বীকার করেনি, কিন্তু সবাই এটা জানত”।

ওই ইন্টারভিউতে নাগমা জানিয়েছেন, “২০০০ সালে গাঙ্গুলীর ক্যারিয়ার যখন শীর্ষে ছিল তখন ভারতীয় দলের হার এবং অধিনায়কত্ব সহ্য করতে পারছিল না সমর্থকেরা। ওদের সম্পর্কে এর প্রভাব পড়ে। সেই সময় গাঙ্গুলী আমাকে ছেড়ে তার ক্যারিয়ারের উপর ফোকাস করা সঠিক বলে মনে করেছিল। আর আমার মত একেবারে সঠিক ছিল গাঙ্গুলীর সিদ্ধান্ত। কিন্তু সমর্থকদের ওই সময় এমন রিয়েকশন দেখে অবাক হয়ে গিয়েছিলাম আমি।

নাগমা এবং গাঙ্গুলী সম্পর্ক নিয়ে আগে আরো জানিয়েছেন, “ভারতের লোকেরা বাস্তবে একজন ব্যক্তির ব্যক্তি ব্যক্তিগত জীবন ও কর্মজীবন একসাথে জুড়ে দেখে, সেটা কিন্তু সঠিক নয়। আমাদের দুজনের সম্পর্কও বলি হয়ে যায়। যদিও আমরা আলাদা হয়েছিলাম দুজনেই নিজেদের মতামত নিয়ে।

About Author
2.