IPL 2023 : রানার আগে IPL-এ KKR-কে নেতৃত্ব দিয়েছেন এই ৬ জন ক্রিকেটার !!

বিশ্বের সেরা টি-টোয়েন্টি লিগে পরিণত হয়েছে ২০০৮ সালে শুরু হওয়া আইপিএল লিগ। আইপিএলের অন্যতম শক্তিশালী দল হল শাহরুখ খানের ফ্র্যাইঞ্চাইজি দল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও যারা দুবার শিরোপা জিতেছিল গম্ভীরের নেতৃত্বে। ২০২২ সালে শ্রেয়াস আইয়ার এই দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তবে এই পর্যন্ত কেকেআর দলকে যে ৬ জন ক্রিকেটার নেতৃত্ব দিয়েছে এবার তাদের সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক:

১. সৌরভ গাঙ্গুলী :

আইপিএল এর প্রথম ও তৃতীয় মরশুমে সৌরভ গাঙ্গুলী কেকেআর দলের অধিনায়ক ছিলেন। উদ্বোধনী ম্যাচে কেকেআর দুর্দান্ত শুরু করেছিল। কিন্তু খুব বেশি দূর এগোতে পারিনি। এরপর ২০০৯ সালে তার অধিনায়কত্ব ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছিল। ২০১০ সালে পুনরায় সৌরভকে নেতৃত্বভার দেওয়া হয়েছিল। তিনি মোট ২৭ টি ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন, সেখানে মুখোমুখি হতে হয়েছিল ১৩ টি জয়ের ও ১৪ টি পরাজয়ের।৪৮.১৪% তার ম্যাচ জয়ের শতকরা।

২. ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম :

সৌরভের ব্যর্থতার পর ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম ২০০৯ সালে অধিনায়ক হয়েছিলেন। কিন্তু তিনিও ব্যর্থ হয়েছিলেন। তিনি দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ১৩ টি ম্যাচে, সেখানে ৩ টি জয়, ৯ টি পরাজয় ও একটি ম্যাচ টাই হয়েছিল। ম্যাককুলামের ম্যাচ জয় শতকরা হল ২৬.৯২%। উল্লেখ্য, তিনি ১৫৮ রানের একটি বিধ্বংসী ইনিংস খেলেছিলেন আইপিএলের উদ্বোধনী মরশুমের প্রথম ম্যাচে, সেটা কেকেআর দলের একমাত্র সেঞ্চুরি ছিল। বর্তমানে ম্যাককুলাম এই দলের কোচ।

৩. গৌতম গম্ভীর :

গৌতম গম্ভীর কেকেআরকে চ্যাম্পিয়ন করেছিলেন দু’বার (২০১২ ও ২০১৪ সালে), তিনি এই দলের হয়ে অধিনায়কত্ব করেছিলেন ২০১১ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত। গৌতম গম্ভীর কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ১২২টি ম্যাচে ৬৯ টি জয়, ৫১ টি হার, একটি ম্যাচ টাই হয়েছিল ও একটি অমীমাংসিত হয়। তার ম্যাচ জয়ের শতকরা ছিল ৫৭.৪৩%। এখনো পর্যন্ত কেকেআর দল গম্ভীরের মতো সুদক্ষ নেতা খুঁজে পায়নি।

৪. জ্যাক ক্যালিস :

কেকেআর দলকে কয়েকটি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ক্রিকেটার জ্যাক ক্যালিস। গম্ভীরের অনুপস্থিতিতে তিনি সুযোগ পেয়েছিলেন মাত্র দুটি ম্যাচে নেতৃত্ব দেওয়ার, সেই সময় একটি জয় ও একটি পরাজয় মুখোমুখি হয়েছিল। জ্যাক ক্যালিসকে বিবেচিত করা হত তার সময়ের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ অলরাউন্ডার হিসেবে।

৫. দীনেশ কার্তিক :

দীনেশ কার্তিক আইপিএলে বিভিন্ন দলের হয়ে খেলার পর ২০১৮ সালে তিনি কেকেআর দলের অধিনায়কত্ব পেয়েছিলেন। কিন্তু ২০২০ সালে চরম ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন টুর্নামেন্ট চলাকালীন। তিনটি মরশুমে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার পর দলকে চ্যাম্পিয়ন করতে ব্যর্থ হয়েছিল। তিনি ৩৭ টি ম্যাচে কেকেআরের হয়ে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, সেখানে ১৯ টি জয়, ১৭টি পরাজয় ও একটি ম্যাচ টাই হয়েছিল। ৫২.৭০% ম্যাচ জয়ের শতকরা ছিল তার।

৬. ইয়ন মরগ্যান :

সর্বশেষ ২০২০ সালে ইয়ন মরগ্যান কেকেআরের অধিনায়ক হয়েছিলেন। তিনি একমাত্র অধিনায়ক যিনি গম্ভীরের পর দলকে ফাইনালে তুলেছিলেন। ২০২১ সালের প্রথম পর্বে তেমনভাবে দলটি পারফরম্যান্স করতে পারেনি। এরপর দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিল দ্বিতীয়ার্ধে এবং ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিল। কেকেআরের হয়ে তিনি নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ২৪টি ম্যাচে, সেখানে ১১ টি জয়, ১২টি হার ও একটি ম্যাচ টাই হয়েছিল। তার ম্যাচ জয়ের শতকরা ছিল ৪৭.৯১%।