পাকিস্তানে জন্মগ্রহণকারী ৩ ক্রিকেটার, যারা অন্য দেশের নাগরিকত্ব নিয়ে আইপিএল খেলছেন !!

পাকিস্তান সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটাররা ২০০৮ সালে অংশ নিয়েছিলেন আইপিএলে। কিন্তু ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সেই বছরই রাজনৈতিক সম্পর্কে ফাটল ধরলে বিসিসিআইয়ের তরফে পরের বছরই চিরতরে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয় সমস্ত পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের। ২০০৮ সালের পরেও আইপিএল খেলেছেন পাকিস্তানে জন্মগ্রহণকারীর তিন ক্রিকেটার অন্য দেশের নাগরিকত্ব পাওয়ার কারণে। তাদের সম্পর্কে এই প্রতিবেদনে বিস্তারিত রইল;

১. আজহার মাহমুদ:

পাকিস্তানের হয়ে অলরাউন্ডার আজহার মাহমুদ ১৪১ টি ওয়ানডে ও ২১ টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন। কিন্তু পাকিস্তান ছেড়ে এই ক্রিকেটার শুরু করেন ইংল্যান্ডে কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে এবং ইংল্যান্ডের নাগরিকত্বও গ্রহণ করেন। যে কারণে আইপিএল খেলার সুযোগ তিনি পেয়েছিলেন। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে পাকিস্তানে জন্মগ্রহণকারী এই ক্রিকেটার খেলেছিলেন। ২৩ টি আইপিএল ম্যাচে আজহার মাহমুদ ৩৮৮ রান করেছেন ২০.৪২ গড়ে ও নিয়েছেন ২৯ টি উইকেট।

২. ইমরান তাহির:

চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে আইপিএলে খেলতে দেখা যায় পাকিস্তানের লাহোরে জন্মগ্রহণকারী ইমরান তাহিরকে। পাকিস্তানের হয়ে এই দুর্দান্ত লেগ স্পিনার অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপও খেলেছেন। তবে দক্ষিণ আফ্রিকায় পাড়ি দেন জাতীয় দলে সুযোগ না পাওয়ার কারণে এবং সে ক্রিকেট খেলা শুরু করেন দেশের নাগরিকত্ব গ্রহণ করে। ইমরান তাহিরের দুর্দান্ত পারফরমেন্স আছে আইপিএলে। এখনো পর্যন্ত তিনি ৫৯টি আইপিএল ম্যাচে ৭.৭৬ ইকোনোমি নিয়ে নিয়েছেন ৮২ টি উইকেট। তার সব থেকে সেরা বোলিং ফিগারটি হলো ৪/১২ উইকেট।

৩. উসমান খোয়াজা:

পাকিস্তানের ইসলামাবাদে জন্মগ্রহণ করেন অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার উসমান খোয়াজা। এরপর অস্ট্রেলিয়ায় চলে আসেন তার পরিবারের সাথে এবং তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার সেখানে গড়েছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে উসমান খোয়াজা ৪০টি ওয়ানডে, ৪৪ টি টেস্ট ও ৯টি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। পুনে সুপার জায়ান্টের হয়ে ২০১৬ সালের আইপিএল খেলেছিলেন। ৬টি আইপিএল ম্যাচে এই বাঁহাতি ওপেনার ১২৭ রান করেছেন ২১.১৭ গড়ে।

Back to top button